অনলাইনে ট্রেনের টিকেট কাটার নিয়ম

আজকের আর্টিকেল এর মাধ্যমে শেয়ার করব অনলাইনে টিকিট কাটার নিয়ম সম্পর্কে। দূরপাল্লার ভ্রমণের জন্য ট্রেন খুবই স্বাচ্ছন্দ্যবোধ একটি পরিবহন। রেল ভ্রমণ নিরাপদ ও সাশ্রয়ী পরিবহন বলা হয়ে থাকে। রেলভ্রমন যেমন আরামদায়ক ঠিক তেমনি ট্রেনের টিকিট কাটাও তেমনি কষ্টদায়ক একটা ব্যাপার। কারণ রেলের টিকিট কাটতে লম্বা সিরিয়ালে দাঁড়িয়ে থাকতে হয়। কষ্ট করে সিরিয়ালে দাঁড়ানো পরও অনেক সময় রেলের টিকিট পাওয়া যায় না। বিশেষ করে ঈদের ছুটি বা বছরের বড় কোন ছুটির সময় এই সমস্যাটি প্রতিবছরই হয়ে থাকে। তাই এই সমস্যা এড়াতে অনলাইনের মাধ্যমে ট্রেনের টিকিট কাটার পদ্ধতি রয়েছে। যা আপনার শারীরিক কষ্ট এবং মানসিক চাপ দুটোই রক্ষা করবে। ঘরে বসেই আপনি নিরাপদে অনলাইনে ট্রেনের টিকিট কাটতে পারবেন। তাই অনলাইনে ট্রেনের টিকেট কাটার নিয়ম সম্পর্কে সুন্দর ভাবে আলোচনা করা হচ্ছে।

অনলাইনে ট্রেনের টিকেট কাটার নিয়ম

অনলাইনে ট্রেনের টিকেট কাটার নিয়ম

অনলাইনে ট্রেনের টিকিট সংগ্রহ করার নিয়ম সম্পর্কে অনেকেরই জানা নেই। যার কারণে অনেকেই লম্বা সিরিয়ালে দাঁড়িয়ে থেকে টিকিট কিনে থাকে। তাই খুব সহজে পদ্ধতিতে আপনি অনলাইনে ট্রেনের টিকিট সংগ্রহ করতে পারবেন সে পদ্ধতি গুলো আলোচনা করা হলো।

প্রথমে আপনি মোবাইল বা কম্পিউটার মাধ্যমে ব্রাউজার ওপেন করুন। https://eticket.railway.gov.bd/ এই লিংকে ভিজিট করুন।

এরকম ওয়েবসাইট দেখতে পারবেন। উপরে মেনুতে দেখতে পারবেন রেজিস্টার বাটন সেখানে ক্লিক করুন।

ক্লিক করার পর আপনাকে রেজিস্ট্রেশন পেইজে নিয়ে যাওয়া হবে। প্রথমে আপনার সম্পূর্ণ নাম লিখবেন। এখন আপনার ই-মেইল নামটি দিবেন। তারপর আপনার মোবাইল নাম্বারটি এখানে দিবেন। পুনরায় আপনার মোবাইল নাম্বারটি দিন। তারপর একটি ইউনিক পাসওয়ার্ড দিন। পুনরায় সেই পাসওয়ার্ড আবার দিবেন। এখানে আইডেন্টিফিকেশন চাচ্ছে। আপনি দুটি পদ্ধতিতে আইডেন্টিফিকেশন করতে পারবেন। আপনার জন্ম সনদ বা ভোটার আইডি কার্ডের মাধ্যমে। আপনার কাছে ভোটার আইডি কার্ড না থাকলেও আপনি জন্ম সনদ দিয়েও রেজিস্ট্রেশন করতে পারবেন। এখন এনআইডি কার্ড বা জন্ম সনদের নাম্বারটি এখানে দিন। তারপর পোস্ট কোড বসান। সর্বশেষে আপনার বর্তমান ঠিকানাটা এখানে বসিয়ে দিন। সাইন আপ বাটনে ক্লিক করুন।

এখন আপনার মোবাইল নাম্বারে এবং ইমেইল এ দুটি অপশনেই OTP পাঠানো হবে তিন মিনিটের মধ্যেই। আপনি মোবাইলের মেসেজ এবং ইমেইল দুটো চেক করবেন। ছয় সংখ্যার একটি OTP নাম্বার যাবে। সেই ওটিপি নাম্বার বসিয়ে continue বাটনে ক্লিক করতে হবে। এখন আপনার রেসিটেশন শেষ হয়েছে এবং আপনি স্বাভাবিকভাবেই ওয়েব সাইটে প্রবেশ করতে পারবেন অথবা পরবর্তী সময়ে এই পাসওয়ার্ড দিয়ে আপনি লগইন করতে পারবেন।

এখন আপনি এখানে একটি ফরম এর মত দেখতে পারবেন। কোন স্টেশন থেকে কোন স্টেশনে যাবেন। কত তারিখে আপনি ভ্রমণ করতে চাচ্ছেন। আপনি কোন ক্লাসে ভ্রমণ করতে চাচ্ছেন সেটি সিলেক্ট করবেন। এখানে নয়টি ক্লাস আছে আপনার পছন্দ অনুযায়ী আপনি একটি ক্লাস সিলেক্ট করুন। এখন Find Ticket বাটনে ক্লিক করুন। এখন আপনি দেখতে পারবেন এই গন্তব্যে যে ট্রেন গুলি যাবে সে ট্রেন গুলির নাম। তারপর আপনার পছন্দ অনুযায়ী ট্রেন সিলেক্ট করতে পারবেন। তারপর view seat এ ক্লিক করে কত টাকা টিকিট খরচ এবং এই ট্রেনের সময়সূচী সম্পর্কে বিস্তারিত সব কিছু জানতে পারবেন।

view seat এ ক্লিক করার পর আপনি সিটের ছবি দেখতে পারবেন। এখান থেকে আপনার পছন্দ অনুযায়ী সিট নিতে পারবেন। আপনি যে সিট নিতে চাচ্ছেন তা মার্ক করুন। আপনি একসঙ্গে চারটি সিটের জন্য টিকিট কিনতে পারবেন। সিট কনফার্ম করে আপনি continue purchase বাটনে ক্লিক করুন। continue purchase বাটনে ক্লিক করার পর আপনি ডেবিট কার্ড, ক্রেডিট কার্ড, বিকাশ, নগদ, রকেট, ডাচ বাংলা ব্যাংক এর মাধ্যমে ট্রেনের টিকিট কিনতে পারবেন। continue purchase বাটনে ক্লিক করার পর যদি বাটন কাজ না করে তাহলে বুঝতে হবে এ টিকিট কেনা হয়ে গেছে।

টিকিট কেনা হয়ে গেলে আপনার ইমেইলে ই-টিকিট পাঠিয়ে দেওয়া হবে। আপনার প্রোফাইলের purchase history থেকেও আপনি টিকিট ডাউনলোড করতে পারবেন। আপনার ইমেইল থেকে ই টিকিট প্রিন্ট করে নিন। আপনি যে আইডেন্টিফিকেশন দিয়ে রেজিষ্ট্রেশন করেছিলেন এনআইডি কার্ড বা জন্ম সনদ তার ফটোকপি সাথে নিবেন। তারপর ticket print information দিয়ে সংশ্লিষ্ট সোর্স স্টেশন থেকে যাত্রা পূর্বে ছাপানোর টিকিট সংগ্রহ করুন।

আপনার ট্রেনের অনলাইন টিকিট ভেরিফাই করার জন্য মূল পেইজ এর উপরে ডানদিকে verify ticket বাটনে ক্লিক করুন। এখন আপনার মোবাইল নাম্বার ও টিকিট নাম্বার লিখে verify ticket এ ক্লিক করলে আপনি টিকিট এর বিস্তারিত তথ্য জানতে পারবেন। টিকিট সংক্রান্ত যে কোন সমস্যা যেমন টিকিটের টাকা জমা দিয়েছেন কিন্তু টিকিট কনফার্ম হয়নি এরকম সমস্যা হলে আপনি মেইল করুন support@eticket.railway.gov.bd এই ঠিকানায়। আপনি যদি মোবাইল ব্যাংকিং এর মাধ্যমে টাকা জমা দিয়ে থাকেন সেক্ষেত্রে যদি টিকিট কনফার্ম না হয় তাহলে সেই মোবাইল ব্যাংকিংয়ের হেল্পলাইনে ফোন দিতে পারবেন।

আরও পড়ুন: ই পাসপোর্টের টাকা জমা দেওয়ার নিয়ম

আরও পড়ুন: ভোটার আইডি কার্ড অনলাইন কপি বের করার নিয়ম

আরও পড়ুন: মৌজা ম্যাপ জমির নকশা ডাউনলোড করার পদ্ধতি

আমাদের শেষকথা 

আজকে আর্টিকেল এর মাধ্যমে আপনাদের সাথে শেয়ার করেছি কিভাবে অনলাইনে ট্রেনের টিকেট কাটার নিয়ম এবং কিভাবে টিকিট সংগ্রহ করবেন এই বিষয়ে আশা করি আপনারা উপকৃত হবেন।

আমাদের এই ব্লগের মাধ্যমে আমরা প্রতিনিয়ত তথ্যবহুল আর্টিকেল পাসপোর্ট, ভোটার আইডি কার্ড, টেকনোলজি,  কম্পিউটার, মোবাইল, ভ্রমণ, ইত্যাদি সম্পর্কিত বিভিন্ন আর্টিকেল পাবলিশ করে আসছি। আশা করি আপনারা আমাদের এই ব্লগটি পছন্দ করবেন।